1. [email protected] : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. [email protected] : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. [email protected] : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. [email protected] : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. [email protected] : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
অ্যাথলেট সামিউলের পাশে তামিম - Daily Cox's Bazar News
রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৯:১৮ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
বিজনেস ট্রান্সফরমেশনে একজন সফল উদ্যোক্তা কক্সবাজারের আশিক ভারতীয় ভূখণ্ডে চীনা সৈন্যের প্রবেশ, স্বীকার করল নয়াদিল্লি পাকিস্তানে ক্রিকেট ম্যাচে এলোপাতাড়ি গুলি ওসি প্রদীপসহ তিন আসামি সাতদিনের রিমান্ডে কক্সবাজারে জলবায়ু উদ্বাস্তুদের স্থায়ী ঠিকানা ‘শেখ হাসিনা আশ্রয়ণ প্রকল্প’ জীবন যুদ্ধে সংগ্রাম করে বেড়ে উঠা কক্সবাজারের এক নারী উদ্যোক্তা ‘আইরিন সুলতানা’ করোনায় চীনকে দায়ী করে ১৩ হাজার কোটি পাউন্ড ক্ষতিপূরণ চেয়েছে জার্মানি এমন রমজান আগে দেখেনি মুসলিমরা ভারতে করোনায় আক্রান্তদের ৮০ শতাংশই উপসর্গবিহীন: আইসিএমআর ঈদের আগে নেতা-কর্মীরা সাক্ষাত পাবেন না খালেদা জিয়ার

অ্যাথলেট সামিউলের পাশে তামিম

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ১১২ বার পড়া হয়েছে

ডিসিবি ডেস্ক :
গত বছর জাতীয় জুনিয়র অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতায় ১০০ মিটার স্প্রিন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন সামিউল ইসলাম। খুলনার এই অ্যাথলেট সময় নিয়েছিলেন ১.১৪ সেকেন্ড। এছাড়া খেপে ফুটবল খেলতেন এবং বিজেএমসির চুক্তিবদ্ধ অ্যাথলেট ছিলেন এবং কাজ করতেন খুলনার ক্রিসেন্ট জুট মিলে। যেখানে সাপ্তাহিক উপার্জন ছিল ১,৮৫০ টাকা। গত ডিসেম্বরে সেই চাকরি চলে যায়।

ফুটবল খেলে আয়ের রাস্তাও এখন বন্ধ। করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির এখন ক্রীড়াঙ্গন। সবমিলিয়ে ছয় সদস্যের সামিউলের পরিবার পড়ে যায় নিদারুণ অর্থকষ্টে। নিত্যদিনের খাবার সংগ্রহই কঠিন হয়ে পড়েছিল। বাবার স্বল্পআয়ে পুরো পরিবারের খাবারের সংস্থান হচ্ছিল না।

সামিউলের পরিবারের এমন দুরবস্থার চিত্র প্রকাশিত হয়েছিল একটি জাতীয় ইংরেজি দৈনিকে। যা নজর কাড়ে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের। পরে ঐ পত্রিকায় ফোন করে সামিউলের মুঠোফোন নম্বর সংগ্রহ করেন তামিম। তারপর সামিউলের সঙ্গে কথা বলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। অর্থকষ্টে দিনাতিপাত করা অ্যাথলেটের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন তামিম। পরিবারের মাসিক ব্যয় জানতে চেয়েছেন এবং সামিউলকে তিন মাসের খরচ পাঠিয়েছেন তিনি।

এই প্রসঙ্গে সামিউল সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমি আসলে ভাবতেই পারিনি তামিম ভাই আমাকে ফোন দেবেন। শুরুতে তাকে আমি চিনতে পারিনি। পরে চিনেছি। আমি তখন অবাক। তামিম ভাই আমাকে ফোন দিয়েছে! ফোন দিয়ে পরিবার কীভাবে চলে, তা জানতে চাইলেন। তারপর সহায়তার কথা বললেন। মনে করেছিলাম, এক-দুই মাসের জন্য আর্থিক সহায়তা পাব। কিন্তু তামিম ভাই তিন মাসের সংসার খরচ পাঠিয়ে দিয়েছেন।’

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications