1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
আবারও স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় বাংলাদেশ - Daily Cox's Bazar News
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:০৭ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

আবারও স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় বাংলাদেশ

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬
  • ১৮৭ বার পড়া হয়েছে

west-indiesএ মাঠেই ২০১২ সালে একবারে ট্রফি ছোঁয়ার দূরত্বে চলে গিয়েছিল বাংলাদেশ। যে এশিয়া কাপের ফাইনাল বাংলাদেশের ক্রিকেটে ‘২ রানের দুঃখ’ হয়ে থাকবে চিরকাল। একটা বৈশ্বিক ট্রফি চাই, কিংবা বড় টুর্নামেন্টের একটা শিরোপা-বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আরেক ধাপ এগিয়ে নেওয়ার সেই দূরত্বটা যুবারাও ঘোচাতে পারল না। ২ রানটাই এবার ‘দুই ধাপে’র অলঙ্ঘনীয় এক দূরত্ব হয়ে থাকল। সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিল স্বাগতিকেরা।

যে ব্যাটিংটা যুব ক্রিকেটে বাংলাদেশকে স্বপ্ন দেখাচ্ছিল এবার, সেটাই হতাশ করল। ২২৬ রানের পুঁজি নিয়ে তবুও লড়াই করল বোলাররা। কিন্তু সেই লড়াইটাই সান্ত্বনা। প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠতে না পারার সান্ত্বনা আসলে হয়? ৮ বল আর ৩ উইকেট হাতে রেখে জিতে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০০৪ সালে সর্বশেষ যেবার অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ বাংলাদেশে হয়েছিল, সেবারও ফাইনালে গিয়েছিল তারা। সেবার অবশ্য রানার্স আপেই সান্ত্বনা খুঁজতে হয় পাকিস্তানের কাছে হেরে। এবার তাদের প্রতিপক্ষ ভারত।
এত অল্প পুঁজি নিয়েও এত দূর লড়াইটাকে টেনে নিয়ে যেতে পারায় বাহবা পেতেই পারে বাংলাদেশের বোলাররা। দায় ব্যাটসম্যানদেরই। উইকেটে থিতু হয়েও ইনিংসটাকে টেনে নিয়ে যেতে না-পারায় নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। ৭৪ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলে মেহেদী মিরাজ ব্যাট হাতে লড়াই করেছেন। বল হাতেও প্রথম দুই উইকেট নিয়ে লড়াইয়ে রেখেছিলেন দলকে।
কিন্তু অধিনায়কের যোগ্য জবাব এল অধিনায়কের ব্যাটেই। শিমরন হেটমায়ারের ৫৯ বলে ৬০ রানের ইনিংসটাই দলের মধ্যে এই বিশ্বাস ছড়িয়ে দিয়েছে, এই বাংলাদেশের কাছে বিশ্বকাপের আগে ৩-০তে সিরিজ হেরেছি তো কী হয়েছে! ক্যারিবীয় অধিনায়ককে যোগ্য সঙ্গ দিলেন শামার স্প্রিঙ্গার। অধিনায়কের বিদায়ের পর বাকি কাজটি সেরে ফেললেন এই অলরাউন্ডার। শেষ পর্যন্ত ৫৯ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। এর আগে বল হাতে ১০ ওভারে মাত্র ৩৬ রান দিয়ে দুই উইকেটও নিয়েছেন। ম্যাচের নায়কের দুই দফা ‘স্প্রিং-নৃত্য’ও দেখা গেল। বোঝা গেল, কেন তাঁর নাম স্প্রিঙ্গার।
স্প্রিঙ্গারের দ্বিতীয় ‘স্প্রিং নাচ’ ম্যাচ শেষে। তখন মিরাজরা মুখ কালো করে মাঠ ছাড়ছেন। আরও ২০ রান তুলতে না-পারা, দুটি সহজ ক্যাচ ফেলা, রান আউটে ভাগ্য পাশে না-পাওয়া…আক্ষেপের তালিকা দীর্ঘই। তবে খেলাটি বয়সভিত্তিক ক্রিকেট। জিতলে বড় প্রাপ্তি হতো সন্দেহ নেই। তবে এই হারের ক্ষত যেন বেশি দিন বয়ে বেড়াতে না হয়। এমনিতে আগামীর সোনালি ভবিষ্যতের গানই তো শোনাচ্ছেন এই তরুণ সেনানীরা।
শুধু আবারও দুই বছরের অপেক্ষা! আবারও সেই ‘দুই’…বাংলাদেশের ক্রিকেটীয় আক্ষেপ আর অপেক্ষার প্রতিশব্দ যেন!

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯: ৫০ ওভারে ২২৬ (পিনাক ০, সাইফ ১০, জয়রাজ ৩৫, সাজমুল ১১, জাকির ২৪, মেহেদী ৬০, সাইফউদ্দিন ৩৬, সাঈদ ৩, মোসাব্বেক ১৪, মেহেদী রানা ১০*, সালেহ ১; জোসেফ ১/৩৩, হোল্ডার ২/৩৬, জন ১/২৯, স্প্রিঙ্গার ২/৩৬, পল ৩/২০)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯: ৪৮.৪ ওভারে ২৩০/৭ (পোপ ৩৮, ইমলাচ ১৪, হেটমায়ার ৬০, কারটি ২২, স্প্রিঙ্গার ৬২*, গুলি ৯, পল ৪, ফ্রিও ১২, জন ২*; মেহেদী ২/৫৭, মেহেদী রানা ০/২৮, সাইফউদ্দিন ২/৪৬, সালেহ ৩/৩৭, মোসাব্বেক ০/৩১)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩ উইকেটে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ: শামান স্প্রিঙ্গার
১৪ ফেব্রুয়ারি ফাইনাল: ভারত–ওয়েস্ট ইন্ডিজ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications