1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
উপকূলে লবণাক্ততায় কৃষকের কপাল পুড়ছে - Daily Cox's Bazar News
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

উপকূলে লবণাক্ততায় কৃষকের কপাল পুড়ছে

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০১৬
  • ৩২০ বার পড়া হয়েছে

Ukhiya-Pic-10-01-2016রফিক উদ্দিন বাবুল, উখিয়া : প্রাকৃতিক দুর্যোগে উখিয়ার উপকূলীয় এলাকায় বসতবাসরত মানুষের কপাল পুড়েছে। ভূগর্ভস’ পানির স্তর আশংকাজনকভাবে নিচে যাওয়ার দেখা দিয়েছে পরিবেশ বিপর্যয়। মাত্রাতিরিক্ত লবণাক্ততার কারণে নষ্ট হচ্ছে বোরো চাষ। বিপন্ন হয়ে মরে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে উপকূলের সবুজ বেষ্টনী খ্যাত ঝাউ বাগান।
গত কয়েক বছরের তুলনায় চলতি বছর শুষ্ক মৌসুমের শুরুতেই উপকূলের প্রায় স’ানে ভূগর্ভস’ পানির স্তর আশংকাজনকভাবে নিচে যাওয়ার ফলে সুপেয় পানি সংকটের পাশাপাশি নদ-নদী ও সাগরে বেড়ে গেছে লবণাক্ততার মাত্রা।
খাল-বিল, ছরা, নালা, নর্দমা দিয়ে লোকালয়ে লবণাক্ত পানি ঢুকে পড়ার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বোরো ফসলসহ কৃষিজাত পণ্য। গ্রামবাসীর দাবি, লবণাক্ততার তীব্রতা বেড়ে যাওয়ার কারণে গোখাদ্য সংকটে পড়ে গৃহপালিত গবাদি পশুর সংখ্যা কমে যাচ্ছে অত্যাধিক হারে।
স’ানীয় পরিবেশবাদী সংগঠন হেলপ কক্সবাজারের নির্বাহী পরিচালক আবুল কাশেম জানান, কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া, মহেশখালী, রামুর আংশিক সহ উখিয়া ও টেকনাফে লবণাক্ত পানির মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে এ তিন উপজেলার কৃষক বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তিনি এসব এলাকায় স’ায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণসহ কৃষকদের সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের দাবি জানিয়েছেন।
উপকূলীয় গ্রাম মাদারবনিয়ার কৃষক শামশুল ইসলাম বলেন, লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়ার কারণে আগের মত ফসল ও অন্যান্য কৃষিজাত পণ্য উৎপাদন হচ্ছে না। যে কারণে পরিবার পরিজন নিয়ে অভাব, অনটনে দিনযাপন করতে হচ্ছে। মনখালী উপকুলের বনরক্ষা সহায়ক কমিটির সভাপতি মোস্তাক আহমদ বলেন, লবণাক্ততা ও আবহাওয়ার বিরুপ প্রভাবের কারণে উপকূলের সবুজ বেষ্টনীসহ অর্থকরী ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে।
চেংছরী গ্রামের কৃষক আবুল শামাসহ একাধিক গ্রামবাসী জানান, চলতি মৌসুমের শুরুতে ভূগর্ভস’ পানির স্তর গভীর চলে যাওয়ার কারণে এখানে হাতিঘোনা যে কয়েকটি নলকূপ রয়েছে তাতেও পানি উঠছে না। সর্বত্র খাবার পানির অভাব দেখা দিয়েছে। স’ানীয় ইউপি সদস্য সোলতান আহমদ মেম্বার জানান, লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়ার কারণে মানুষের জীবন জীবিকা সহ উৎপাদনমুখী যাবতীয় কৃষিজাত পণ্যের ওপর প্রভাব পড়েছে।
স’ানীয় চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানিয়েছেন, অর্থকরী ফসলের মধ্যে পান, সুপারি, নারিকেল ও তরমুজ উৎপাদনের জন্য উপকূলীয় ইউনিয়ন জালিয়াপালং এর কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, লবণাক্ততার মাত্রা দিন দিন বেড়ে যাওয়ার কারণে এলাকার অধিকাংশ পরিবারে আর্থসামাজিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আর কয়েক দিন পর এখানে খাবার পানি সংকটের মাত্রা আরো বেড়ে যাবে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুমন শীল জানান, লবণাক্তত পানি কৃষি ও ফসলের জন্য খুবই ক্ষতিকর। যেখানে লবণাক্ত পানি বিদ্যমান রয়েছে, সেখানে কৃষিজাত পণ্যের লক্ষ্যমাত্রা উৎপাদন কোনভাবেই সম্ভব নয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications