1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
জঙ্গি নেতাকে ছাড়াতে ছুটে গেলেন এমপি বদি! - Daily Cox's Bazar News
সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

জঙ্গি নেতাকে ছাড়াতে ছুটে গেলেন এমপি বদি!

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ৩১ জুলাই, ২০১৬
  • ২৪০ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা জঙ্গি সংগঠন আরএসওর শীর্ষ নেতা হাফেজ সালাহ উল ইসলাম (৪০) এবং এক সৌদি নাগরিকসহ চারজনকে আটক করেছে যৌথ বাহিনী।

শনিবার দুপুরে উপজেলার বাহারছড়ায় একটি বাড়িতে গোপন বৈঠক চলাকালে তাদের আটক করা হয়।

অভিযান চলাকালে সেখানে উপস্থিত হন স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি। তিনি নিজের লোক পরিচয় দিয়ে আটকদের ছেড়ে দিতে যৌথ বাহিনীর ওপর ব্যাপক চাপ সৃষ্টি করেন বলে জানিয়েছেন অভিযান পরিচালনা-কারীরা।

টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের সামলাপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন ছৈয়দ করিমের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক সৌদি নাগরিক আহমদ সালেহ আল তান্দি তার দেশের একটি এনজিওর প্রতিনিধি হিসেবে বৈঠকে যোগ দেন।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, সৌদি আরবের একটি এনজিওর দেওয়া ২৬ কোটি টাকা ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে ওই বৈঠক চলছিল। বিদেশি নাগরিককে নিয়ে ওই বৈঠকের বিষয়ে প্রশাসনকে অবহিত করা হয়নি। সূত্র জানায়, ওই এনজিও এর আগেও কোটি কোটি পাঠিয়েছে। সালাহ উলের মাধ্যমে ওই টাকা রোহিঙ্গা জঙ্গিদের প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়।

কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আনোয়ারুল নাসের জানান, সালাহ উল ইসলাম এক সৌদি নাগরিকসহ আরও কয়েক ব্যক্তিকে নিয়ে ওই বাড়িতে বৈঠক করছিলেন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ ইকবালের নেতৃত্বে প্রশাসন পুলিশ-বিজিবির সমন্বয়ে অভিযান চালায়। এ সময় কয়েকজন পালিয়ে গেলেও আটক করা হয় আরএসওর শীর্ষ নেতা সালাহ উল, সৌদি নাগরিক আহমদ সালেহ আল তান্দি, মৌলভি মো. ইব্রাহিম ও বাড়ির মালিক মৌলভি ছৈয়দ করিমকে। ইব্রাহিমের বাড়ি টাঙ্গাইলে। তিনি ঢাকায় থাকেন।

টেকনাফে বিজিবির ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবুজার আল জাহিদ জানান, অভিযানে সালাহ উলকে বাড়ির একটি বাথরুমে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় আটক করা হয়। বিজিবি অধিনায়ক জানান, অভিযান পরিচালনার সময় উখিয়া-টেকনাফের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি সেখানে উপস্থিত হন। তিনি সালাউল ও সালেহ আল তান্দিকে ছেড়ে দিতে যৌথ বাহিনীকে ব্যাপক চাপ দেন। যৌথ বাহিনী আটক ব্যক্তিদের এমপির জিম্মায় ছেড়ে দিতে রাজি না হলে তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এমপি বদি আটক ব্যক্তিদের নিজের লোক দাবি করে তাদের ছেড়ে দিতে বলেন। এ নিয়ে তিনি যৌথ বাহিনীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডায়ও জড়ান। এ বিষয়ে জানতে এমপি বদির মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

coxs pict rso 01.08.2016প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গোপন ওই বৈঠকে টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা রফিক উদ্দিন ও বাহারছড়ার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজ উদ্দিনও ছিলেন। যৌথ বাহিনীর অভিযান টের পেয়ে তারা বাড়ির পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

গোয়েন্দা সংস্থা ও পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, মিয়ানমারের মংডু শহরের মৃত নেজাম উদ্দিনের ছেলে সালাহ উল ১৯৭৮ সালে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেন। মিয়ানমারভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আরএসওকে বাংলাদেশে সংগঠিত করতে ভূমিকা রাখেন। তিনি আরএসওর সামরিক বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে। তিনি বাংলাদেশে ভোটার হয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রও পেয়েছেন। কক্সবাজার সদরের ঝিলংজার মহুরিপাড়ায় ইমাম মুসলিম ইসলামিক সেন্টার নামে একটি মাদ্রাসার পরিচালক তিনি।

২০১৩ সালেও টেকনাফে একটি মাদ্রাসায় গোপন বৈঠক থেকে তাকে আটক করা হয়েছিল। কয়েক মাস জেলে থাকার পর তিনি জামিনে বের হয়ে আসেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ২৯ সেপ্টেম্বর রামুর বৌদ্ধবিহার ও বসতিতে হামলা, অগি্নসংযোগ, লুটপাটের ঘটনায় আরএসও জড়িত থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। ওই ঘটনায় সালাহ উলের বিরুদ্ধে অর্থ জোগান দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

সুত্র-চ্যানেল২৬

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications