1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
জেলায় কাজে আসেনি বোর্ডের নির্দেশ অতিরিক্ত ফি ফেরত দেয়নি স্কুল কর্তৃপক্ষ - Daily Cox's Bazar News
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৪৮ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

জেলায় কাজে আসেনি বোর্ডের নির্দেশ অতিরিক্ত ফি ফেরত দেয়নি স্কুল কর্তৃপক্ষ

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬
  • ২১৪ বার পড়া হয়েছে
!-excl-logoজেলায় এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি নেওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অতিরিক্ত ফি ফেরত দেওয়ার শিক্ষা বোর্ডের নির্দেশ মানছে বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। উল্টো বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বর্ধিত ফি আদায় করেনি বলে বোর্ডকে জানিয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রামু উপজেলার বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বর্ধিত ফি ফেরত দিলেও সদর, চকরিয়াসহ অন্যান্য কোন উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ফি ফেরত দেয় নি। বরং তাদের কোন শিক্ষার্থী যেন কোন মিডিয়ার সাথে কথা না বলে সে বিষয়ে বারণ করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।
এদিকে যারা বোর্ডের আদেশ মানবে না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান।
কক্সবাজার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, চট্টগামের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান স্বাক্ষরিত ৪ ফেব্রুয়ারি প্রেরিত পত্রে কক্সবাজারের ২১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া অতিরিক্ত ফি ফেরত দিতে নির্দেশ দেন। এ তালিকায় রয়েছে কক্সবাজার সদর উপজেলার আল বয়ান ইনস্টিটিউট, বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমি, প্রিপ্যার‌্যাটরি উচ্চ বিদ্যালয়, কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কক্সবাজার মডেল হাই স্কুল, সৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ইলিয়াস মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, আমেনা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, আলহাজ ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়, কাওয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়, গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, আল ফুয়াদ একাডেমি ধোয়াপালং (রামু), রামু খিজারী উচ্চ বিদ্যালয়, মনছুর আলী সিকদার আইডিয়াল বিদ্যালয়, দক্ষিণ মিঠাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়, ধেছুয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয় রামু, ডুলাহাজারা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় চকরিয়া, চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ। এ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বিজ্ঞান বিভাগে ১১৪৫ টাকা, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগে ১০৫৫ টাকার বাইরে নেওয়া ফি ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সকল শিক্ষার্থীদের ফেরত দিয়ে বোর্ডকে অবহিত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু এই নির্দেশ মানে নি বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আলাপকালে কক্সবাজার মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক রমজান আলী বলেন, আমরা বোর্ড ফির বাইরে কোন ফি আদায় করিনি, সেটা বোর্ডকে অবহিত করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। সৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান সমর কান্তি দে বলেন, আমরা বোর্ড নির্ধারিত ফির বাইরে কোন বর্ধিত ফি আদায় করিনি, সেটা আমরা দ্রুত বোর্ডকে অবহিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমি সহকারী প্রধান শিক্ষক আবু তৈয়ব বলেন, আমরা বোর্ড ফি’র বাইরে কোন নিয়েছি কেউ প্রমাণ দিতে পারবে না। সেটা আমরা বোর্ডকে অবহিত করে দিয়েছি। এদিকে বেশ কয়েক জন অভিবাবক বলেন, আদালতে নির্দেশ এবং বোর্ডকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে শহরের স্কুলগুলো বর্ধিত ফি ফেরত না দিয়ে উল্টো বোর্ডকে বোকা বানাতে চাইছে। সবাই জানে কোন বিদ্যালয় কত টাকা ফি নিয়েছে সে বিষয়ে স্থানীয় অনেক পত্রিকায় বাস্তব প্রতিবেদন ও হয়েছে। এদিকে তালিকা তে মারাত্মক অসংগতি রয়েছে কক্সবাজার সরকারি ২ উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ২ বিদ্যালয়ে মানবিক বিভাগ না থাকলেও সেখানে ২৭০৫ টাকা ফি নেওয়া হয়েছে বলে লিখা হয়েছে যা একে বারে বাস্তবতার অনেক দূরে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হয়তো বোর্ডকে কেউ বিভ্রান্ত করেছে আমরা বোর্ড ফির বাইরে কোন টাকা নেওয়ার প্রশ্নই আসে না। আর বাণিজ্য বিভাগ তে নেই তাহলে কিভাবে ফি নেব।
ইলিয়াস মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এবং খরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে কথা বলতে গিয়ে জানা গেছে তাদের স্কুল থেকে শিক্ষকরা কয়েক বার ফোন করেছে যে এসএসসি পরীক্ষার ফি নিয়ে কোন জায়গায় যেন কথা না বলি। বিশেষ করে কোন মিডিয়ার সাথে যেন কোন কথা না বলি। রামু ধেছুয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ওসমান গনি বলেন আমাদের ৫৬ জন পরীক্ষার্থী ছিল আমরা সকল বর্ধিত ফি ফেরত দিয়েছি এবং সেটা বোর্ডকে অবহিত করেছি। তবে পরীক্ষা কেন্দ্র ফি সহ নানান খরচ আছে সেটাও কর্তৃপক্ষের বুঝা উচিত। রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুফিজুর রহমান বলেন আমরা হিসাব করে সব টাকা ফেরত দিয়ে বোর্ড কর্মকর্তাদের সামনেই সব কাগজ পত্র জমা দিয়ে দিয়েছি। রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছৈয়দ করিম বলেন আমাদের ১৬০ জন পরীক্ষার্থী ছিল সে হিসাবে তাদের যা প্রাপ্য সব টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেহেতু এটা সরকারি নির্দেশ তাই আমরা সম্মান করেছি। সবার সম্মান করা দরকার। রামু ফজল আম্বিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমান উল্লাহ বলেন, আমদের ৮৫ জন পরীক্ষার্থী ছিল সবাইকে বর্ধিত ফি ফেরত দেওয়া হয়েছে এবং সেটা বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে সদর উপজেলা মাধ্যামিক শিক্ষা অফিসার মো. সেলিম বলেন আমি কিছু মাদ্রাসার বিষয়ে জানতাম কিন্তু স্কুল বিষয়ে আমি জানি না। অথচ জেলা মাধ্যামিক শিক্ষা অফিসে ৪ ফেব্রুয়ারি বোর্ডের প্রতিবেদনটি এসেছে। এ ব্যপারে জেলা মাধ্যামিক শিক্ষা অফিসার মো. জসিম উদ্দিন বলেন স্কুলগুলো কি ব্যবস্থা নিয়েছে সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি কেউ বোর্ড নির্দেশ না মানে তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এদিকে আলাপকালে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. শাহজাহান কঠোর হুঁশিয়ারী দিয়ে বলেন, মন্ত্রণালয়ের আদেশ এবং বোর্ডের আদেশ যারা মানবে না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। কেউ মিথ্যার আশ্রয় নিলে তাদের বিরুদ্ধে আরো কঠোর শাস্তি অপেক্ষা করছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications