1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নয় দিন পর সচল - Daily Cox's Bazar News
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৪ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নয় দিন পর সচল

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০১৬
  • ২৬৯ বার পড়া হয়েছে
image_1434_219550বেতন কাঠামোর ‘বৈষম্য’ দূর করার দাবিতে আন্দোলনরত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা তাদের কর্মসূচি স্থগিত করে ক্লাসে ফিরেছেন; যার মধ্যদিয়ে উচ্চশিক্ষার বিদ্যাপীঠগুলোতে নয় দিন ধরে চলা অচলাবস্থার অবসান হলো।
বুধবার সকাল থেকে নিয়মিত ক্লাস শুরু হওয়ায় ঢাকা, চট্টগ্রাম, জগন্নাথ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ফিরে এসেছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পুরনো ব্যস্ততা।

তবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনো শীতের ছুটি চলছে। আর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা নিজেরা বৈঠক করে ক্লাসে ফেরার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন।
সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস পেয়ে মঙ্গলবার নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে আন্দোলন স্থগিত করার ঘোষণা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। সে অনুযায়ী বুধবার সকাল থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের মহাসচিব অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, ‘ফেডারেশনের সভায় বুধবার থেকে ক্লাস শুরুর সিদ্ধান্ত ছিল। সে অনুযায়ী আজ গতকাল সকালে নির্ধারিত সময়েই ক্লাস শুরু হয়েছে।’
এক সপ্তাহ ধরে চলা কর্মবিরতির কারণে শিক্ষার্থীদের যে ক্ষতি হয়েছে, অতিরিক্ত ক্লাস নিয়ে তা পুষিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হবে বলে জানান তিনি।
সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল, মোকাররম ভবন, কলাভবন ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ঘুরে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ক্লাসে দেখা যায়।
কার্জন হলে মৎস্য বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী অলক ঘোষ জানান, নতুন বছরে এটাই তাদের প্রথম ক্লাস হচ্ছে। ক্লাস শুরু করায় শিক্ষকদের ধন্যবাদ জানান তিনি।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমি বিভিন্ন বিভাগে খোঁজ নিয়ে জেনেছি, শিক্ষকরা ক্লাস নিচ্ছেন।’
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়েও সকাল থেকে রুটিনমাফিক ক্লাস চলছে। শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম আবদুল্লাহ জানান, তারা বেলা ১১টায় সাধারণ সভা করে ফেডারেশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ক্লাস-পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক সৈয়দ শামসুল আলম জানান, সেখানে রুটিন অনুযায়ী ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হয়েছে। ফেডারেশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়েও ক্লাস শুরু হয়েছে বলে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খসরুল আলম কুদ্দুসী জানিয়েছেন।
সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ট্রেন ও বাস সময় মেনেই ক্যাম্পাসে এসেছে। ছাত্রছাত্রীদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে ক্যাম্পাসে।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. খবির উদ্দিন জানিয়েছেন, ২৬ জানুয়ারি শীতের ছুটি শেষে নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হবে।
বেতন কাঠামোর বৈষম্য নিরসন দাবিতে ১১ জানুয়ারি থেকে কর্মবিরতিতে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সোমবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরই কর্মসূচি থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।
মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের মোজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির নেতারা আলোচনায় বসেন।
সোয়া এক ঘণ্টার আলোচনা শেষে কর্মবিরতি কর্মসূচির ‘আপাতত’ ইতি টেনে ক্লাসে ফেরার ঘোষণা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন।
গত মাসে অষ্টম বেতন কাঠামোর গেজেট প্রকাশের পর আন্দোলন জোরদার করেন আগে থেকে এ নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা।
টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড বাতিল করার বিরোধিতা করছিলেন তারা। পাশাপাশি জ্যেষ্ঠ সচিবদের সমান গ্রেডে উন্নীত হওয়ার সুযোগ না থাকাকে মর্যাদাহানি হিসেবে দেখছিলেন তারা।
শিক্ষকরা আপত্তি তোলার পর তাদের দাবি পর্যালোচনায় একটি কমিটি গঠন করে সরকার। কমিটির সভাপতি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত শিক্ষকদের নিয়ে বৈঠকও করেন।
বৈঠকে অর্থমন্ত্রী শিক্ষকদের তিনটি দাবি মেনে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও ১০ দিন পর প্রকাশিত গেজেটে তার প্রতিফলন দেখা যায়নি, অভিযোগ শিক্ষকদের।
এরপর ১১ জানুয়ারি থেকে লাগাতার কর্মবিরতি শুরু করে ৩৭ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতিগুলোর জোট বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications