1. arif.arman@gmail.com : Daily Coxsbazar : Daily Coxsbazar
  2. dailycoxsbazar@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  3. litonsaikat@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  4. shakil.cox@gmail.com : ডেইলি কক্সবাজার :
  5. info@dailycoxsbazar.com : ডেইলি কক্সবাজার : Daily ডেইলি কক্সবাজার
মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা পরিদর্শনে জাতীয় সম্পদ রক্ষা কমিটি - Daily Cox's Bazar News
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:০১ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
ডেইলি কক্সবাজারে আপনার স্বাগতম। প্রতি মূহুর্তের খবর পেতে আমাদের সাথে থাকুন।
সংবাদ শিরোনাম ::
কট্টরপন্থী ইসলামী দল হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জ: এসএডিএফ কক্সবাজারের আট তরুণ তরুণীকে ‘অদম্য তারূণ্য’ সম্মাননা জানাবে ঢাকাস্থ কক্সবাজার সমিতি Job opportunity বিশ্বের সবচেয়ে বড় আয়না, নাকি স্বপ্নের দেশ! আল-আকসা মসজিদে ইহুদিদের প্রার্থনা বন্ধের আহ্বান আরব লীগের পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে ৮০ হাজার টাকার জাল নোটসহ গ্রেফতার-১ পেকুয়ায় অস্ত্র নিয়ে ফেসবুকে ভাইরাল : অস্ত্রসহ আটক শীর্ষ সন্ত্রাসী লিটন টেকনাফে একটি পোপা মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা ! কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক-১ নিউ ইয়র্কে মেয়র কার্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ নিয়ে কনসাল জেনারেলের আলোচনা

মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা পরিদর্শনে জাতীয় সম্পদ রক্ষা কমিটি

ডেইলি কক্সবাজার ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬
  • ১৮৬ বার পড়া হয়েছে
matarbari eleমহেশখালীতে নির্মাণাধীন মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা পরিদর্শন করেছেন তেল-গ্যাস, বিদ্যুৎ-বন্দর ও খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটি জেলা শাখার নেতারা।
শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত মাতারবাড়ীতে নির্মাণাধীন বিদ্যুৎ কেন্দ্রের আশপাশের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন তারা।
পরিদর্শনকালে নেতৃবৃন্দ এলাকার স্থানীয় লোকজনের সাথে মতবিনিময় এবং বিভিন্ন সমস্যাদি নিয়ে কথা বলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন তেল-গ্যাস, বিদ্যুৎ-বন্দর ও খনিজ সম্পদ রক্ষা জাতীয় কমিটি কক্সবাজার জেলা শাখার আহবায়ক নুরুল আবছার, সদস্য সচিব করিম উল্লাহ, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) জেলা শাখার সভাপতি ফজলুল কাদের চৌধুরী, সংগঠক অনিল দত্ত, শমশের হায়দার, রফিকুল আহসান বুলবুল ও সেভ দ্যা ন্যাচার এর চেয়ারম্যান  আ. ন. ম. মোয়াজ্জেম হোসেন।
পরিবেশের ক্ষতি ও অর্থনৈতিক দিক বিবেচনায় কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য প্রকল্পাধীন এলাকার চেয়ে হাঁসের দিঘী এলাকা ছিল উপযুক্ত বলে নেতৃবৃন্দ অভিমত প্রকাশ করেন।
স্থানীয় লোকজনের অভিমত তুলে ধরে নেতৃবৃন্দ বলেন, কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য অধিগ্রহণ করা সব জমিতেই লবণ ও চিংড়ী সহ মৎস্য চাষ হতো। এর উপর হাজার হাজার লোকের জীবন-জীবিকা নির্ভরশীল ছিল। দীর্ঘদিনের আবার অনেকের উত্তরাধিকার সূত্রের পেশা ছেড়ে কর্মহীন জীবনযাপন করতে হচ্ছে। প্রায় ২০ হাজার লোক বেকার-অর্ধ বেকার হয়েছেন। অনেকে এলাকা ছেড়ে অন্যত্রে বসবাস করছেন।
উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের আগে এলাকার লোকজনের পুনর্বাসন ও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Dailycoxsbazar
Theme Customized BY Media Text Communications