আজকের দিন-তারিখ

  • শনিবার ( রাত ১০:১২ )
  • ৭ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
  • ১০ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
  • ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ( হেমন্তকাল )

Archive Calendar

ডিসেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহস্পতি শুক্র শনি রবি
« জুলাই    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
কক্সবাজার

সদরের খুরুস্কুলের ইয়াবা কারবারিরা অধরা

286views

অনলাইন ডেস্ক : সদরের খুরুশকুল এলাকার মাদকের ভয়াল থাবা থেকে রক্ষা করা যাচ্ছেনা বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ। এই এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন সচেতন মহল। চলমান ইয়াবা বিরোধী অভিযানে জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রভাব পড়লেও খুরুশকুলে ইয়াবা কারবারীদের মাঝে কোন প্রভাব পড়েনি।

খুরুশকুলের বেশির ভাগ ইয়াবা ব্যবসায়িরা এখনো এলাকায় রয়েছে এবং প্রতিনিয়ত তারা ইয়াবা ব্যবসা পরিচালনা করছে। এতে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে সমাজ।

স্থানীয়দের মতে, খুরুস্কুল কুলিয়া পাড়া এলাকায় বাদশা, জিয়াউর রহমান মাঝি ও বাবুল একটি ইয়াবা সিন্ডিকেট পরিচালনা করে। উক্ত সিন্ডিকেট বাদশার নিজস্ব ট্রলার দিয়ে জিয়াউর রহমান মাঝি এবং তার ভাই বাবুল মিয়ানমার থেকে ইয়াবা চালান এনে দেশের বিভিন্ন জেলায় ইয়াবা পৌছে দেয়।

রুবেল, লম্বা জসিম ও তার ভাই দিদার মিলে একটা সিন্ডিকেট। তারা এলাকার খুচরা ব্যবসায়ী হিসেবে বেশ পরিচিত।

মামুন নিজেই খুরুস্কুলের কাউয়ার পাড়া থেকে ঈদগাহ এবং ঢাকার বিভিন্ন স্থানে পাইকারি ব্যবসা করে।

আব্দুল্লাহ ও দিলদার আলম (প্রঃইয়াবা বাবু), তারা দুইজন মিলে সিন্ডিকেট। এই সিন্ডিকেট খুরুস্কুল থেকে কলাতলী পর্যন্ত খুচরা এবং পাইকারি বিক্রি করে বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

অন্যদিকে, ইউনিয়ন পরিষদের ১ নং ওয়ার্ডে হেদায়েত উল্লাহ , ২ নং ওয়ার্ডে রাশেদ। ৩ নং ওয়ার্ডে রাস্তার পাড়া এলাকায় আতাউর রহমান ভুট্টু, ৪নং ওয়ার্ডে মিঠু মেম্বারের ছেলে সোহরান,রাসেল। কাওয়ার পাড়া এলাকায় মনিরুল হক কুতুবজেরি।

এছাড়া দক্ষিন মামুন পাড়ার এলাকায় বাদশা ও আলমগীর। জানাপাড়ার ফরিদের ছেলে বেলাল ও মনজুর আলম, হাটখোলা পাড়া এলাকায় মুন্না।
কুলিয়া পাড়া এলাকার মানিক।

উত্তর মামুন পাড়ার নোমান,জোবায়ের ও বেদারুল আলম। ডেইল পাড়া এলাকার রাসেদ উদ্দিন, আবদুল্লাহ, জিয়াবুল হক, নুরুচ্ছফা, সিরাজুউল্লাহ ও লোকমান হোসেন। মোহাম্মদ আলী ডেইল পাড়া, দক্ষিণ মামুন পাড়া  নবাব মিয়া, শাহজাহান, রেজাউল করিম।উল্লেখিতরা ইয়াবা ব্যবসার সাথে সরাসরি জড়িত বলে জানান এলাকাবাসী।