আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ( বিকাল ৪:১১ )
  • ৭ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
  • ১৪ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী
  • ২৪শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ( বসন্তকাল )

Archive Calendar

 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
ক্রীড়াঙ্গন

৯৫ রানে হারল বাংলাদেশ

463views

জোড়ার খেলায় মেতেছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানেরা। শুধু সাব্বির রহমানের সে খেলায় নামতে ইচ্ছে হয়নি। এতে শুধু ধারা নষ্ট হয়েছে কিন্তু জোড়ায় জোড়ায় ফেরার সংখ্যা কমেনি। দুই এর নামতা পড়ে ব্যাটসম্যানদের ফেরার মিছিলে ভারতের কাছে প্রস্তুতি ম্যাচে হারের ব্যবধানটাও তাই কমানো যায়নি খুব একটা। ৯৫ রানে হেরেছে বাংলাদেশ।

৩৬০ রানের লক্ষ্যে নেমে ৪৯ রানের জুটি গড়লেন সৌম্য সরকার (২৫) ও লিটন দাস। দশম ওভারের চতুর্থ বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন সৌম্য। সাকিব আল হাসানকে পেয়ে পরের বলটাই ইয়র্কার দিয়েছেন জসপ্রীত বুমরা। সেটা আটকানোর কোনো সুযোগ পাননি সাকিব। বিশ্বকাপের আগে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে গোল্ডেন ডাক নিয়ে ফিরেছেন সাকিব। বাংলাদেশেরও জোড়া উইকেট পতনের শুরু হলো।

৪৯ রানে দুই উইকেট হারানো দলকে পথ দেখিয়েছেন লিটন ও মুশফিকুর রহিম। শুরুতে ভিত্তি গড়ায় মনোযোগ দিয়ে পরে বেশ দ্রুত গতিতেই রান তুলেছেন দুজন। যখনই মনে হচ্ছিল এবার হয়তো সেঞ্চুরি নিয়েই মাঠ ছাড়বেন লিটন তখন প্রশংসার স্রোতে বাধ দিতে হলো। যুজবেন্দ্র চাহালের বলে স্টাম্পিং হয়ে ফিরেছেন লিটন (৯০ বলে ৭৩)। ১২০ রানে থামল তৃতীয় উইকেট জুটি। পরের বলটাই গুগলি করলেন চাহাল। মাত্রই নামা মোহাম্মদ মিঠুন বুঝে উঠতেই পারলেন না সে বল। এলবিডব্লু হয়ে ফিরলেন। দ্বিতীয় জোড়া উইকেট হারাল বাংলাদেশ।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে ২২ রান যোগ করে মাহমুদউল্লাহ (৯) ফিরলেন কুলদীপ যাদবের বলে বোল্ড হয়ে। সাব্বির রহমান পরের বলে উইকেট না দিয়ে জোড়ার খেলা থামালেন। তবে সেটা কিছুক্ষণের জন্য। দলকে দুই শ পার করে স্লগ সুইপ করতে গিয়ে ওই কুলদীপের বলেই বোল্ড হলেন মুশফিক। সেঞ্চুরির সুবাসটা পেতে পেতেও পাওয়া হয়নি তাঁর। ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৯৪ বলে ৯০ রান করেছেন মুশফিক। পরের বলটা ছিল রংওয়ান, মোসাদ্দেক কিছু বুঝে উঠতে পারলেন না। পা সামলাতে না পেরে স্টাম্পড মোসাদ্দেক। আবারও জোড়া উইকেট হারাল দল!

দলে সাত নম্বর পজিশন নিয়ে মোসাদ্দেকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে সাব্বিরের। কিন্তু মোসাদ্দেকের ব্যর্থতা কাজে লাগাতে পারলেন না সাব্বির (৭)। দলের স্কোরে কোনো পরিবর্তন না এনে পরের ওভারেই বিদায় নিলেন জাদেজার বলকে স্টাম্পে টেনে এনে। ৫ উইকেটে ২১৬ থেকে মুহূর্তে ৭ বলের মধ্যে বাংলাদেশ ৮ উইকেটে ২১৬! ইনিংসের তখনো ৫৮ বল বাকি। জয় ১৪৪ রান দূরে।

অসম্ভব সে লক্ষ্য তাড়া করার কোনো চেষ্টাই করেননি মেহেদী হাসান মিরাজ (২৭) ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন। কোনোমতে বাকি ওভার কাটিয়ে দেওয়ার পণই দেখা গেছে তাদের মাঝে। বাংলাদেশকে আড়াই শ পার করার স্বস্তি এনে দিয়েছেন দুজন। পরাজয়ের ব্যবধানটাও এক শর নিচে নামিয়েছে এ জুটি। ৪৬ রানের জুটি গড়ে সাইফউদ্দীন (১৮) বিদায় নিয়েছেন চাহালের বলে। পাঁচ বল পর অলআউট হওয়ার আগে শুধু ২ রান যোগ করতে পেরেছে বাংলাদেশ।

প্রস্তুতি ম্যাচে জয় পরাজয় মুখ্য নয়। অনুশীলনটাই বড়। সে ক্ষেত্রে ভারতের বিপক্ষে বোলারদের পর অধিকাংশ ব্যাটসম্যানই সুযোগ হাতছাড়া করলেন আজ।