সংবাদ শিরোনাম

হাসি ও গম্ভীর মুখের পার্থক্য বুঝতে পারে ছাগল!

আমরা কথায় কথায় কাউকে না কাউকে ছাগল বলে ফেলি। ছাগল বলা হয় সাধারণত তুচ্ছার্থে; কাউকে বোকাসোকা বোঝাতে। কিন্তু জানেন কি বাস্তবে এই ছাগলই অনেক বুদ্ধিমান? যে ছাগলকে আপনি বোকাসোকা ভাবেন সেই ছাগলই মানুষের হাসি ও গম্ভীর মুখের ছবি আলাদাভাবে চিনতে পারে? বুধবার এমন এক গবেষণা প্রতিবেদনে এটাই দাবি করা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএপি’র।

ইউরোপ ও ব্রাজিলের গবেষকরা জানান, ২০টি গৃহপালিত ছাগলকে একই ব্যক্তির হাসি ও গম্ভীর মুখের দুটি ছবি দেখানো হলে তারা হাসি মুখের ছবিটিকেই মুখ দিয়ে স্পর্শ করে।

সহকারি গবেষক লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিস্টিয়ান নওরোত বলেন, ‘ছাগলরা হাসিমুখের দিকে গড়ে ১ দশমিক ৪ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকে ও স্পর্শ করে। আর গম্ভীর মুখের দিকে ০ দশমিক ৯ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এর মানে ছাগলরা আনুমানিক ৫০ শতাংশ বেশি সময় হাসি মুখের ছবির দিকে তাকিয়ে ছিল। তারা ছবিটাকে স্পর্শ করে।’

রয়েল সোসাইটি ওপেন সাইন্স পত্রিকায় গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়। তারা দাবি করে ছাগল যে মানুষের আবেগ বুঝতে পারে এটা তার প্রথম প্রমাণ।

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী