সংবাদ শিরোনাম

আগে-পিছে ভাবেনি ওরা ফলোআপ

কৈশোরের দুরন্তপনার হাতছানিতে ঘর ছাড়ে চার স্কুলছাত্র। কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম হয়ে ওঠে রাঙামাটির একটি হোটেলে। দুদিনের ভাড়া অগ্রিমও দেয়। অপহরণ আতঙ্কে যখন পরিবার উদ্বিগ্ন তখন তারা হোটেলে বসে ছক কষছিল কোথায় কোথায় বেড়ানো যায়। কিন্তু ৩০ ঘণ্টা পার হওয়ার আগেই ‘বেরসিক পুলিশ’ বাদ সেধেছে তাদের আনন্দ ভ্রমণে। গতকাল দুপুরে রাঙামাটির হোটেল থেকে উদ্ধার হয় সেই চার দুরন্ত কিশোর। স্বস্তি আসে পরিবারে। অষ্টম শ্রেণির ছাত্র এইচ এ গালিব উদ্দিন, শাহরিয়ার কামাল সাকিব ও তার খালাত ভাই শাফিন নূর ইসলাম এবং সপ্তম শ্রেণির সাইয়েদ নকীব স্কুল আরপ্রাইভেটের কথা বলে রবিবার সকালে বের হয়। কিন্তু রাতে ঘরে না ফেরায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন তাদের পরিবার। তার পরই থানা পুলিশে খবর যায়। কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এই চার শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনায় প্রশাসনও নড়েচড়ে বসে। এদিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার দুপুর ২টার দিকে রাঙামাটি পুলিশ তাদেরকে হোটেল থেকে উদ্ধার করে।

রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সত্যজিৎ বড়ুয়া জানান, পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. শাহজালাল চার কিশোরকে শহরের রিজার্ভ বাজারের আবাসিক হোটেল রাজুর ৪০২ নম্বর কক্ষ থেকে উদ্ধার করেন। তারা সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় রয়েছে। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে।এদিকে হোটেল রাজুর ব্যবস্থাপক জানান, চট্টগ্রাম থেকে বেড়াতে এসেছে বলে চার কিশোর রবিবার রাতে হোটেলের কক্ষ ভাড়া নেয়। দুদিনের জন্য অগ্রিম ১২০০ টাকাও পরিশোধ করে।চার কিশোর জানায়, পূর্ব পরিকল্পনানুসারে স্কুল আর প্রাইভেটের কথা বলে রবিবার সকালে বের হয়েছিল তারা। কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম হয়ে রাঙামাটিতে আসে সন্ধ্যায়। নিজেদের ইচ্ছেতেই চার বন্ধু মিলে রাঙামাটিতে ঘুরতে আসে।

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী