সংবাদ শিরোনাম

বিশ্বের ২৬তম ক্ষমতাধর নারী শেখ হাসিনা

ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর নারীর তালিকায় চার ধাপ এগিয়ে ২৬তম স্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে গত বছর তিনি একই তালিকায় ৩০তম অবস্থানে ছিলেন।

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) ফোর্বস ম্যাগাজিন এই তালিকা প্রকাশ করে, যেখানে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল এক নম্বর অবস্থানে রয়েছেন।

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে দ্বিতীয় ও আইএমএফ চেয়ারম্যান ক্রিস্টিন লাগার্দ এই তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন। এ ছাড়া  যুক্তরাষ্ট্রের টেলিভিশন উপস্থাপক অপরাহ উইনফ্রে ২০তম, কুইন এলিজাবেথ (দ্বিতীয়) ২৩তম এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ও তার উপদেষ্টা ইভাংকা ট্রাম্প রয়েছেন তালিকার ২৪তম স্থানে।

এ বছরের শীর্ষ ১০০ ক্ষমতাধর নারীর তালিকা সম্পর্কে ফোর্বসের দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ক্ষমতা কাঠামোর পরিবর্তন ও তার দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা নারীরা এ বছর ১০০ ক্ষমতাধর নারীর তালিকায় স্থান পেয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশম জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের মাধ্যমে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে এই দায়িত্ব পেয়েছেন। এর আগে, ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্তও তিনি প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৮১ সাল থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন তিনি। গত বছরের আগস্ট থেকে এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দেওয়া ও তাদের শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসনে তার ভূমিকার প্রশংসা করেছে ফোর্বস।

ম্যাগাজিনটিতে শেখ হাসিনার পরিচয় ও অবদান উল্লেখ করতে গিয়ে লেখা হয়েছে, ২০১৭ সালে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও তাদের জন্য বাংলাদেশে ২ হাজার একর জমি বরাদ্দ দিয়েছেন। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে প্রাণে বাঁচতে এই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। এ ছাড়া ‘বাংলাদেশ স্থায়ীভাবে রোহিঙ্গাদের বোঝা মাথায় নেবে না’— এ লক্ষে রোহিঙ্গাদের শান্তিপূর্ণ প্রত্যাবাসনে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

এর আগে, ২০১৭ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের ১০০ ক্ষমতাধর নারীর তালিকায় ৩০তম অবস্থানে এবং ২০১৬ সালে ৩৬তম অবস্থানে ছিলেন শেখ হাসিনা।

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী