সংবাদ শিরোনাম

যিনি বাদ দিয়েছেন তাকে জিজ্ঞেস করুন, সিনিয়রদের না রাখার প্রশ্নে কাদের

কক্সবাজার ডেস্ক :

নতুন মন্ত্রিসভায় সিনিয়রদের না রাখার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দশম জাতীয় সংসদের মন্ত্রীদের শেষ কর্মদিবসে আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।  নতুন মন্ত্রিসভায় সিনিয়রদের বাদ দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যিনি বাদ দিয়েছেন তাকে জিজ্ঞেস করুন। সিদ্ধান্তটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। এখানে বাদ পড়াটা আমি ওভাবে বলতে চাই না। দায়িত্বের পরিবর্তন সেভাবেই দেখা যায়। তারা পার্টিতে মনোনিবেশ করবেন। বাদ দেয়া কথাটা ঠিক নয়।’প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী ওয়াদা বাস্তবায়ন উপযোগী করে নতুন মন্ত্রিসভা গঠন করছেন বলেও জানান সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘তবে নতুন মন্ত্রিসভায় সময়ে চাহিদা অনুযায়ী পরিবর্তন আসতে পারে।’আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যে মন্ত্রিসভা সাজানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে মন্ত্রিসভা জাতিকে উপহার দিলেন এটা জনগণ কী চোখে দেখছেন, কীভাবে নিচ্ছেন দেয়ার ইজ ভ্যারি ইম্পোরটেন্ট। এই যে প্রত্যাশা, প্রত্যাশার সঙ্গে বাস্তবতার মিল কতটুকু, যখন নতুন মন্ত্রীরা কাজে মনোনিবেশ করবেন, তারা যখন দায়িত্ব পালন করবেন, দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়েই প্রমিজের ওপর কতটা ডেলিভার করতে পারবেন সেটার ওপর নির্ভর করবে সাফল্য ব্যর্থতা।’ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এবার কিন্তু প্রাইম মিনিস্টার খুব সিরিয়াস এবং এই ব্যাপারে তার সিদ্ধান্ত অত্যন্ত কঠিন। পারফরমেন্স না করতে পারলে অবশ্যই কারো মন্ত্রী থাকার কোনো অধিকার থাকবে না।’‘এবার মন্ত্রিসভায় একটা বিষয় এসেছে, সেটা খোলামেলা বলা উচিত। শেখ হাসিনার যে দৃষ্টিভঙ্গিটা কাজ করেছে সেটা হচ্ছে, তিনি এবার মন্ত্রিসভা গঠনে গুরুত্ব দিয়েছেন যেসব এলাকাগুলো দীর্ঘকাল ধরে মন্ত্রী হওয়া থেকে বঞ্চিত, যেসব জেলা থেকে মন্ত্রী হয়নি, সেসব জেলাগুলোতে তিনি বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। এবার অনেকগুলো জেলা থেকে নতুন মুখ এসেছে’- বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।তিনি বলেন, ‌‘দল পূর্বের যেকোনো সময়ের চেয়ে এখন অনেক বেশি দৃঢ়, ঐক্যবদ্ধ। আমরা অনেক বেশি স্ট্রংগার ও অনেক স্মার্ট।’নতুন মন্ত্রিসভার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের দল সলিড ইউনাইটেড। কাজেই এটা নিয়ে আমাদের দলের ভেতর ভাঙন, আমাদের মধ্যে কোনো অসন্তোষ নেই। ’

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী