সংবাদ শিরোনাম

এনজিওতে স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশ

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এনজিওর চাকরিতে স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন। একই সাথে স্থানীয়দের জন্য চাকরি পেতে যোগ্যতা শিথিল করার নির্দেশও দেন জেলা প্রশাসক। একই সাথে স্থানীয়দের বিনা কারনে চাকরিচ্যুতের অভিযোগের সত্যতা পেলে ঐ এনজিওর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্থানিয়দের ন্যায্য আন্দোলনের পরিপেক্ষিতে এই নির্দেশনা দেয়ার কথা সাংবাদিকদের জানান জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন জানান, রোহিঙ্গা আসার কারনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উখিয়া-টেকনাফের স্থানিয়রা। সাম্প্রতিক সময়ে কিছু কিছু এনজিওতে স্থানিয়দের চাকরি থেকে ছাটাই করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চাকরি স্থানিয়দের অধিকার। এই ব্যাপারে সরকারের নির্দেশনাও আছে। ছাটাইয়ের এই অভিযোগ তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেলে এনজিওর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন আরো জানান, স্থানিয়রা অভিযোগ করেছে কিছু কিছু এনজিও বিভিন্ন চাকরিতে অযৌক্তিক ভাবে উচ্চতর যোগ্যতা চাচ্ছে। কোন এনজিওতে খাদ্য সরবরাহকারী বা খাদ্য সামগ্রী বিতরনের জন্য মাস্টার্স পাশ করার লোক চাচ্ছে। এইটি সম্পুর্ন অযৌক্তিক। তাই স্থানিয়দের চাকরি পাওয়ার সুবিধার জন্য যোগ্যতা শিথিল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এই সংক্রান্তে আগামী ২৭ জানুয়ারী এনজিও সমন্বয় সভা ডাকার কথা জানান জেলা প্রশাসক।

এই ব্যাপারে এনজিওতে স্থানিয়দের চাকরির অধিকার নিয়ে আন্দোলনের নেতা ইমরুল কায়েস চৌধুরী বলেন, স্থানিয়দের চাকরির জন্য এনজিওদের প্রতি জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা আন্দোলনের প্রথম সফলতা। জেলা প্রশাসকের সিদ্ধান্ত এনজিওরা কতটুকু বাস্তবায়ন করছে সেটি এখন দেখার বিষয়। এছাড়াও তাদের সকল যোক্তিক দাবি মেনে নেয়ার আহবান জানান তিনি। যদি এনজিওরা ২৭ জানুয়ারীর ভেতরে জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা না মানে তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনের মাধ্যমে স্থানিয়দের দাবি মানতে এনজিওদের বাধ্য করা হবে।

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী