সংবাদ শিরোনাম

খোলাবাজারে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ

দেশি-বিদেশি সংস্থা নিয়মিত ত্রাণ দিচ্ছে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের। তবে, সেই ত্রাণ এখন মিলছে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন খোলাবাজারে। বিশ্লেষকরা বলছেন, এনজিওগুলোর সমন্বয়হীনতা, তদারকির অভাব ছাড়াও রয়েছে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ত্রাণ দেয়া। ফলে ক্যাম্প থেকে এসব ত্রাণ চলে যাচ্ছে বাইরে। যদিও এ ব্যাপারে নজরদারি বাড়ানোর কথা বলছে প্রশাসন।

উখিয়া, টেকনাফ ছাড়াও কক্সবাজারের নানা জায়গায় এভাবেই প্রকাশ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিক্রি করছেন রোহিঙ্গারা।

শুধু কক্সবাজারই নয়, এসব সামগ্রী আসছে দেড়শ কিলোমিটার দূরে, চট্টগ্রামেও। এখানকার অনেক এলাকায় মিলছে রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্দ করা চাল, ডাল, তেল, গুড়োদুধসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র।

রোহিঙ্গাদের প্রতিটি পরিবারকে ৩০ কেজি করে চাল ছাড়াও নানাধরনের সামগ্রী দেয় দেশি-বিদেশী বিভিন্ন সংস্থা। কিন্তু তার একটি অংশ চলে যাচ্ছে ক্যাম্পের বাইরে। যা রোহিঙ্গারাই বিক্রি করে দিচ্ছে বলে জানালেন কয়েকজন বিক্রেতা। পণ্যগুলো মানসম্মত এবং দামে সস্তা হওয়ায় অনায়াসে কিনছেন স্থানীয়রা।

এজন্য এনজিওগুলোর সমন্বয়হীনতা আর তদারকির অভাবকে দায়ী করছেন পর্যবেক্ষকরা। তবে এনজিও ফোরাম বলছে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ত্রাণ দেয়ায় এই অবস্থা।

তবে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানালেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

ইন্টার সেক্টর কো-অর্ডিনেশন গ্রুপের হিসাব অনুসারে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা পরিবারের সংখ্যা ২ লাখ ১৬ হাজার। তাতে মানুষ আছে ১১ লাখের বেশি।

Editor in Chief : Sayed Shakil
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী