সংবাদ শিরোনাম

আত্মসমর্পণ করা চার জঙ্গি তামিম গ্রুপের

সাভারের আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়নের চৌরাবালি এলাকায় ‘জঙ্গি আস্তানার’ ভেতরে আর কেউ নেই। চার ‘জঙ্গির আত্মসমর্পণের’ পর অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব)। তবে বাড়িটির ভেতরে কাজ করছে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল।

আজ রোববার বেলা আড়াইটার দিকে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আটক চারজন গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী নব্য জেএমবির তামিম গ্রুপের সদস্য। ওই এলাকায় তাঁদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল।

আটক চার ‘জঙ্গি’ হলেন, মোজাম্মেল হক, রাশেদুন্নবী, ইরফানুল ইসলাম ও আলমগীর হোসেন। তাঁদের মধ্যে দলনেতা হলেন, মোজাম্মেল হক।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, দেড় মাস আগে ওই চারজন পোশাক কারখানার শ্রমিক পরিচয়ে বাসাটি ভাড়া নেন। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব গত রাত একটার দিকে বাড়িটি ঘিরে অভিযান চালায়। রাত তিনটার দিকে ‘জঙ্গিরা’ জানতে পারেন র‌্যাব বাড়িটি ঘিরে রেখেছে। আজ সকাল আটার দিকে ‘জঙ্গিরা’ র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছোড়ে। র‌্যাব বারবার তাঁদের আত্মসমর্পণ করার জন্য মাইকে আহ্বান জানায়। সর্বশেষ তাঁদের বলা হয়, দুপুর ১২টার মধ্যে আত্মসমর্পণ না করলে র‌্যাব অভিযান চালাবে। এতে ‘জঙ্গিরা’ নিহত হতে পারেন। এরপর একজন ‘জঙ্গি’ আত্মসমর্পণ করেন। তাঁর মাধ্যমে বাকি তিনজন ‘জঙ্গিকে’ আত্মসমর্পণ করানো হয়।

আটক ‘জঙ্গিদের’ জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলে জানান মুফতি মাহমুদ খান।

Editor- Sayed Mohammad SHAKIL.
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী