সংবাদ শিরোনাম

শুরু হচ্ছে জাতিসংঘের ৭২ তম অধিবেশন, কেন্দ্রীয় বিবেচনায় ‘মানুষ’

বিশ্বের সমগ্র মানুষকে কেন্দ্রে রেখে শুরু হচ্ছে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশন। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দফতরে মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) নিউ ইয়র্ক সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত দেড়টা) অধিবেশনের উদ্বোধন হবে। চলবে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। সাধারণ বিতর্ক শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। ‘স্থিতিশীল পৃথিবীতে মানুষের জন্য শান্তি আর মর্যাদাপূর্ণ জীবনের সংগ্রাম’কে উপজীব্য করা হয়েছে এবারের অধিবেশনের। সঙ্গত কারণেই এবারের অধিবেশনে শিক্ষা, পরিবেশ, সামাজিক উন্নয়ন, বাণিজ্য, লিঙ্গ, মানব উন্নয়ন, বিশ্বায়ন, তথ্য-প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন, পানি ও পয়ঃনিষ্কাশনের মতো ইস্যুগুলো প্রাধান্য পাবে। এছাড়া আলোচনায় থাকবে জাতিসংঘের এজেন্ডা ২০৩০।

এবারের অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন স্লোভেনিয়ার কূটনীতিক মিরোস্লাভ লাজক্যাক। সোমবার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের সভাপতি হিসেবে তার শপথের মধ্য দিয়ে ৭১তম সাধারণ অধিবেশনের সমাপ্তি ঘটলো। মিরোস্লাভ ৭১তম অধিবেশনের সভাপতি পিটার থমসনের কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।

৭১তম অধিবেশনের সমাপ্তি ভাষণে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্থনিও গুয়েতেরেজ বিদায়ী সভাপতিকে তার কাজের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। থমসনের নেতৃত্বে ৭১তম অধিবেশন সফল ছিল বলে উল্লেখ করেছেন মহাসচিব। একই সঙ্গে তিনি সাধারণ পরিষদের নতুন সভাপতি মিরোস্লাভের সঙ্গে কাজের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

বিদায়ী ভাষণে থমসন তার নেতৃত্বে সাধারণ পরিষদের এক বছরের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা এবং জীবনধারণের স্থিতিশীল উপায় সৃষ্টির জন্য সচেতনতা তৈরিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।

৭২ তম অধিবেশনের বিভিন্ন আলোচ্য বিষয় নিয়ে বিস্তারিত তথ্য এরই মধ্যে প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। অধিবেশনের সভাপতি মিরোস্লাভ লাজক্যাক সাধারণ পরিষদের আগামী এক বছরের জন্য ছয়টি বিষয়কে অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা জানিয়েছেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, সাধারণ মানুষের জীবনে পরিবর্তন সাধন, শান্তি বজায় রাখতে প্রতিরোধ ও মধ্যস্থতা, অভিবাসন, এসডিজি ও জলবায়ুর জন্য রাজনৈতিক পদক্ষেপ, মানবাধিকার ও সমতা, সব লিঙ্গের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি এবং মানসম্পন্ন বিভিন্ন কর্মসূচি আয়োজন।

রোহিঙ্গা ইস্যু তুলে ধরবে বাংলাদেশ

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর সেখানকার সেনাবাহিনীর নির্যাতন, হত্যা, তাদের বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়া এবং প্রাণ বাঁচাতে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ায় সৃষ্ট সংকট সাধারণ অধিবেশনে তুলে ধরবে বাংলাদেশ। রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ঢাকায় এই তথ্য জানিয়েছেন।

অধিবেশনে যোগ দিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্ক পৌঁছাবেন। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী এবারের জাতিসংঘের সাধারণ সভায় রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কথা বলবেন।

এদিকে, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানও জানিয়েছেন সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা ইস্যু তিনি তুলে ধরবেন গুরুত্বের সঙ্গে।

যোগ দেবেন না পুতিন

রুশ সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে জাতিসংঘের এবারের অধিবেশনে যোগ দিচ্ছেন না দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) পুতিনের মুখপাত্র এই তথ্য জানিয়েছেন।

পুতিনের প্রেস সচিব দিমিত্রি পেসকভ জানান, জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করেনি প্রেসিডেন্ট।

অধিবেশনে পুতিনের অনুপস্থিতির কারণ সম্পর্কে কোনও তথ্য জানাননি পেসকভ।

জাতিসংঘের সংস্কার প্রশ্নকে সামনে আনবে যুক্তরাষ্ট্র-ইইউ

অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি ১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্বনেতাদের নিয়ে জাতিসংঘের সদর দফতরে একটি সম্মেলন করতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জাতিসংঘের সবচেয়ে সমালোচকদের একজন ট্রাম্প সংস্থাটির সংস্কারের বিষয়ে বিশ্বনেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। পরদিন ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি অধিবেশনে আনুষ্ঠানিকভাবে ভাষণ দেবেন। ট্রাম্প আয়োজিত সম্মেলনে পুতিন যোগ দিবেন কিনা তা জানা যায়নি।

জাতিসংঘের অধিবেশনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) নিজেদের অগ্রাধিকারমূলক ইস্যুগুলো চূড়ান্ত করেছে। এবারের অধিবেশনে ইইউ জাতিসংঘকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরবে। সংস্থাটির শক্তিশালীকরণ ও সংস্কারকে অগ্রাধিকার হিসেবে নিয়েছে তারা। একই সঙ্গে বৈশ্বিক শৃঙ্খলার ওপরও জোর দেবে সংস্থাটি। এছাড়া ইইউ শান্তি ও সংঘাত প্রতিরোধ, লিঙ্গীয় সমতা ও নারীর ক্ষমতায়নের বিষয়েও গুরুত্বারোপ করবে।

এই সময়ে নিউ ইয়র্কে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সেমিনার, কর্মশালাসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি আয়োজন করা হবে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে গ্লোবাল গোলস উইক ২০১৭ ও নিউ ইয়র্ক জলবায়ু সপ্তাহ ২০১৭।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশন প্রতি বছর বিশ্বের জন্য গুরুত্বপূর্ণ আয়োজন। এই অধিবেশনকে কেন্দ্র করে জাতিসংঘের ১৯৩টি সদস্য রাষ্ট্রের প্রধান, মন্ত্রী, কর্মকর্তা, একাডেমিশিয়ানদের মিলনস্থলে পরিণত হয় নিউ ইয়র্ক। এবারও এর ব্যতিক্রম ঘটবে না।

Editor- Sayed Mohammad SHAKIL.
Office: Evan plaza, sador model thana road, cox’sbazar-4700. Email: dailycoxsbazar@gmail.com / phone: 01819099070
অনুমতি ছাড়া অথবা তথ্যসূত্র উল্লেখ না করে এই ওয়েব সাইট-এর কোন অংশ, লেখা বা ছবি নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনী
error: Content is protected !!